পিরোজপুরে অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরায় ৩ অর্থদন্ড সহ জাল আটক

পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ ধরায় ৩ জেলের অর্থদন্ড সহ প্রায় ৬ লাখ টাকার জাল আটক করা হয়েছে। জেলার নাজিরপুরে ও কাউখালীতে রবিবার (১১ ফেব্রæয়ারী) মৎস্য অফিস ও ভ্রাম্যমান আদালতের উদ্যোগে ওই জাল আটক ও অর্থদন্ড করা হয়।

জানা গেছে, ওই দিন কাউখালীতে অবৈধ কারেন্ট জাল দিয়ে মাছ শিকার করায় তিন জেলেকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় জেলেদের কাছ থেকে তিন হাজার মিটার কারেন্ট জব্দ করা হয়েছে। রবিবার (১১ ফেব্রæয়রী) ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. বায়েজিদুর রহমান এ অর্থদন্ডের আদেশ দেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানায়, ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় বিশেষ কম্বিং অপারেশনের অংশ হিসেবে রবিবার সকাল ৯ টার দিকে কাউখালী উপজেলা প্রশাসন ও মৎস্য অধিদপ্তর চিরাপাড়া নদীতে অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় তিন হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট জাল সহ চিরাপাড়া গ্রামের জের আলীর ছেলে সজিব (১৮), বড় বিড়ালজুরি গ্রামের ইদ্রিস খন্দকারের ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৭) ও সোনাকুর গ্রামের মো. খলিল শেখের ছেলে পারভেজ শেখ (২০) নামের তিন জেলকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অবৈধ জাল দিয়ে মাছ ধরার অপরাধে মৎস্য সুরক্ষা ও সংরক্ষণ আইনে এক জেলেকে দুই হাজার টাকা ও দুই জেলেকে পাঁচ হাজার টাকা করে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করেন। আর পরে জব্দকৃত জাল জনসম্মুখে আগুনে পুড়িয়ে বিনষ্ট করা হয়। এ সময় নৌ পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. হাফিজুর রহমান বলেন, নদীতে মাছ শিকারে কারেন্ট জাল ব্যবহার সম্পূর্ণ অবৈধ। এ জালের বিরুদ্ধে মৎস্য অফিসের উদ্যোগে প্রশাসনের সহায়তায় ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ ছাড়া নাজিরপুর সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা গৌতম মন্ডল জানান, উপজেলার কালিগঙ্গা ও বলেশ্বর নদীতে অভিযান চালিয়ে আড়াই প্রায় ২০হাজার মিটার অবৈধ কারেন্ট, বাঁধা জাল ও চরপাটা জাল আটক করা হয়। আটককৃত ওই সব জালের মূল্য প্রায় আড়াই লাখ টাকা। ভ্রাম্যমান আদালত ও প্রশাসনের সহায়তায় ওই সব জাল আটক করা হয়। তবে এ সময় কাউকে আটক করা সম্ভব হয় নি।

এইচ এম লাহেল মাহমুদ/ইবিটাইমস 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »