হবিগঞ্জের ৫ পরিবার সমাজচ্যুত, সন্তানদের দিয়ে মানবেতর জীবন যাপন

হবিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ হবিগঞ্জের চুনারুঘাট উপজেলার উবাহাটা ইউনিয়নের বড়কোট গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ৫ পরিবারকে সমাজচ্যুত করা হয়েছে। ফলে পরিবার পরিজন নিয়ে তারা মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। সমাজচ্যুত করার কারণে ওই পরিবারগুলো রাস্তাঘাটে বের হতে গেলে নানাভাবে অপমানিত হচ্ছেন। ধানকাটা, টিউবওয়েলে পানি সংগ্রহ করা, গোসল করাসহ ওই পরিবারের অনেক শিক্ষার্থীরা স্কুলে আসা যাওয়া করতে নানা প্রতিবন্ধকতার শিকার হচ্ছেন। কোনো শ্রমিক না পাওয়ায় জমিতে পাকা ফসল বিনষ্ট হচ্ছে।

জানা যায়, ওই গ্রামের আলমগীর মিয়া ওরফে এখলাছের সাথে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে একই গ্রামের তাজ উদ্দিন ও আমির মিয়ার। এ নিয়ে মামলা মোকদ্দমা রয়েছে। বিষয়টি সমাধানের লক্ষে একাধিকবার সালিশ হয়। কিন্তু সমাধান না হওয়ায় গ্রামের মাতব্বর পঞ্চায়েত প্রধান ভিংরাজ মিয়ার সভাপতিত্বে কবির মিয়া, মরতুজ আলী, সফিক মিয়া, উস্তার মিয়া, জুয়েল মিয়া, তোফায়েল, কাদির মিয়া, মানিক মিয়া, আওয়াল হাজী, ওয়াহিদ মিয়ার উপস্থিতিতে সম্প্রতি সালিশ বিচার হয়। সালিশ বিচারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সভাপতি ভিংরাজ মিয়া তাদেরকে সমাজচ্যুত করেন।

তবে সমাজচ্যুত করার বিষয়টি করা হয়েছে ভিংরাজ মিয়া বলেন, এখলাছ মিয়া, ফারুক মিয়া, ছালেক মিয়াসহ তার আত্মীয়রা সালিশ বিচার মানেনা। ওই ৫ পরিবারের সাথে আমাদের পঞ্চায়েতের লোকজনকে সম্পর্ক না রাখতে বলা হয়েছে।

মুরুব্বি উস্তার মিয়া বলেন, সমাজচ্যুত করার বিষয়টি সঠিক নয়। তাদের সাথে শুধুমাত্র পঞ্চায়েতের লোকজনকে চলাচল না করতে বারণ করা হয়েছে।
গ্রাম প্রধান কবির মিয়া বলেন, সমাজচ্যুত করার বিষয়টি সঠিক নয়। আমি চেষ্টা করেছি উভয়পক্ষকে মিলিয়ে দেয়ার। উবাহাটা ইউপি চেয়ারম্যান এজাজ ঠাকুর জানান, বিষয়টি শুনেছি। খবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার সিদ্ধার্থ ভৌমিক জানান, বিষয়টি আমার জানা নেই। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে জরুরিভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বর্তমানে ওই পরিবারগুলো মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

মোতাব্বির হোসেন কাজল/ইবিটাইমস 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »