অস্ট্রিয়ার কাছে ২-০ গোলে জার্মানির পরাজয়

পূর্বের খেলায় তুরস্কের কাছে পরাজিত হওয়ার পর, এবার অস্ট্রিয়ার কাছেও হেরে প্রচণ্ড চাপে “ইউরো ২০২৪” এর আয়োজক জার্মানি 

ভিয়েনা ডেস্কঃ মঙ্গলবার (২১ নভেম্বর) সন্ধ্যায় রাজধানী ভিয়েনার আর্নস্ট হ্যাপেল (Ernst-Happel) স্টেডিয়ামে এক আন্তর্জাতিক ফ্রেন্ডশীপ ফুটবল খেলায় সাবেক বিশ্ব ও ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন জার্মানি তার ছোট প্রতিবেশী অস্ট্রিয়ার কাছে ২-০ গোলে পরাজিত হয়েছে। খেলার দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই জার্মানির লেরয় সান লাল কার্ড পেয়ে মাঠ ত্যাগ করলে জার্মানিদের বাকী সময় ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়।

ভিয়েনায় স্বাগতিক অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক প্রীতি ফুটবল ম্যাচে জার্মানি খেলায় প্রথম দিকে অধিকাংশ সময় বল তাদের নিয়ন্ত্রণে রাখলেও আক্রমণ ও গোলের সুযোগ তৈরি করতে পারে নি জার্মানিরা। অবশ্য বর্তমান সময়ে বেশ ভালো ফর্মে থাকা অস্ট্রিয়ার কৌশলী ফুটবলও বেশী একটা সুযোগ দেয় নি জার্মানিদের।

এদিকে ৪৬,০০০ দর্শকের উপস্থিতিতে সম্পূর্ন টিকিট বিক্রি হওয়া হ্যাপেল স্টেডিয়ামে স্বাগতিক অস্ট্রিয়ার নতুন টিম বস রাল্ফ রাঙ্গনিকের দলের হয়ে দলের প্রথম গোল করেন মার্সেল সাবিৎজার (২৯তম মিনিটে) এবং ক্রিস্টোফ বামগার্টনার (৭৩তম মিনিটে)।

এর আগে খেলার দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ৪৯ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় জার্মানি। এই সময় অস্ট্রিয়ার রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ফিলিফ এময়েনেক
কে ধাক্কা দিলে স্লোভেনিয়ার রেফারি স্লাভকো ভিনসিস জার্মানির লেরয় সানকে লাল কার্ড দেখিয়ে মাঠ থেকে বের করে দেন। ফলে বাকী সময় জার্মানিদের ১০ জন নিয়ে খেলতে হয়।

পর পর দুই আন্তর্জাতিক ম্যাচে প্রথমে তুরস্কের কাছে ৩-২ গোলে এবং অস্ট্রিয়ার কাছে ২-০ গোলে পরাজিত জার্মানি জাতীয় দল প্রচণ্ড সমালোচনার মুখে পড়েছে। অস্ট্রিয়ার সাথে পরাজয়ের পর জার্মানির স্থানীয় একটি সম্প্রচার কেন্দ্রের সাথে এক সাক্ষাৎকারে জার্মানির নতুন কোচ নাগেলসম্যান বলেন, আমরা অস্ট্রিয়ার বিরুদ্ধে স্বাধীনভাবে খেলতে পারি নি। প্রতিটি জায়গায় আমাদের এখন অবিশ্বাস্য রকমের কাজ করতে হবে। আমাদের বর্তমান দলের পরিস্থিতি মেনে নিতে হবে। তবে আমাদের আর এমন শিকারের পরিণত হওয়া চলবে না।

কোচ নাগেলসম্যান আরও বলেন, অনুশীলনের সময় জার্মানির দল ভালোই করছে কিন্তু মাঠে সেটার ঠিকঠাক রুপান্তর করে উঠতে পারছে না। আমাদের আত্মবিশ্বাসে সামান্য ঘাটতি আছে বলে মনে হচ্ছে। আমাদের গত কয়েক মাসের পারফরম্যান্সের দিকে তাকালে সেটা একেবারেই ভুল বলা হবে না।

অস্ট্রিয়ার সাথে অবিশ্বাস্য ২-০ গোলে পরাজিত হওয়ার পর জার্মানির জাতীয় দলের অধিনায়ক ইলকাই গুন্দোয়ানও হতাশা প্রকাশ করেছেন। তিনি জার্মানির সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “দলের মধ্যে বর্তমানে হতাশা আর হতাশা”। আমাদের হতাশার সুযোগে অস্ট্রিয়ানরা ভালো খেলে তারা তাদের পুরস্কার জিতে নিয়েছে।

সাবেক একাধিকবারের বিশ্ব ও ইউরোপীয় চ্যাম্পিয়ন জার্মানিদের বর্তমানে এমন দূরাবস্থার মধ্যেও সমর্থকদের জন্য বড় স্বস্তি হচ্ছে জাতীয় দলটিকে
অন্তত বাছাইপর্বে খেলে “ইউরো ২০২৪” এর টিকেট পেতে হচ্ছে না। ২০২৪ সালের গ্রীষ্মে আয়োজক দেশ হিসাবে সরাসরি “ইউরো কাপ” খেলার সুযোগ পাবে স্বাগতিক জার্মানি।

কবির আহমেদ/ইবিটাইমস 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »