বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ না দিয়ে খালেদা জিয়াকে হত্যা করতে চায় সরকার – কৃষক দলের সভায় মির্জা ফখরুল

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, বর্তমান সরকার খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে না দিয়ে, তাকে হত্যা করতে চায়”

ইবিটাইমস ডেস্কঃ সোমবার (২ অক্টোবর), বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার ‘অন্যায্য’ বন্দীদশা থেকে মুক্তি, বর্তমান সরকারের পদত্যাগ এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে আগামী নির্বাচনের দাবিতে, নয়াপল্টনে বাংলাদেশ কৃষক দলের এক সমাবেশ এ কথা বলেন তিনি।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, “বর্তমান অনির্বাচিত ও গণবিরোধী সরকার তাকে চিকিৎসার কোনো সুযোগ না দিয়ে হত্যা করতে চায় বলে দেশের জনগণ ক্ষোভে ফেটে পড়েছে। বিনা চিকিৎসায় খালেদা জিয়াকে হত্যার জন্য সরকার জনগণকে বিভ্রান্ত করতে প্রতারণা ও আইনের ভুল ব্যাখ্যা দিচ্ছে।”

মির্জা ফখরুল বলেন, “তারা ভীত ও কাপুরুষ। তারা জানে, খালেদা জিয়া সুস্থ হয়ে জনগণের মাঝে ফিরে এলে তাদের সিংহাসন ভেঙে পড়বে।” তিনি বলেন, “বেগম খালেদা জিয়া যখন জীবন-মরণের সন্ধিক্ষণে আছেন, তখন আপনারা এসব কথা বলছেন কেন?”

মির্জা ফখরুল বলেন, “সরকার রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসা নিতে দিতে রাজি নয়। তারা চায় না বেগম জিয়া সুস্থ হয়ে উঠুক; আর, তারা তাকে রাজনীতি করতে দিতে চায় না। আওয়ামী লীগের মূল লক্ষ্য হচ্ছে, এ দেশে কোনো বিরোধী দল থাকবে না।একমাত্র তারাই এ দেশে সরকার পরিচালনা করবে।তাদের বক্তব্য থেকে মনে হয়, তারাই এ দেশের একমাত্র মালিক এবং আমরা সবাই তাদের প্রজা।”

এদিকে, বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল জানিয়েছেন, “আইন মন্ত্রণালয়ের মতামতের পর, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত পরিবর্তনের সুযোগ নেই।” সোমবার (২ অক্টোবর) নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “এ বিষয়ে যেহেতু আইনি জটিলতা রয়েছে, তাই সেই পত্র আইন মন্ত্রণালয় পাঠানো হয়েছিলো, তাদের মতামতের জন্য। মতামত যা এসেছে, তা বোধহয় তাদের (খালেদা জিয়ার পরিবার) পক্ষে আসেনি। এটা দেয়া সম্ভব নয় বলে আইন মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের জানিয়েছে।”

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান বলেন, “এখন আমাদের আর কিছু করণীয় নেই বলে আমি মনে করছি।” সিদ্ধান্ত কি খালেদা জিয়ার পরিবারকে জানিয়ে দেয়া হবে; জানতে চাইলে তিনি বলেন, “তারা যদি জানতে চান আমরা অবশ্যই জানিয়ে দেবো। তবে, ইতোমধ্যেই তিনি জেনে গেছেন।”বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, “তাদের কোনো কিছু জানার থাকলে, কথা বলতে পারেন। কিন্তু, সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করার সুযোগ এই মুহূর্তে আমাদের কাছে নেই।”

চিকিৎসার জন্য খালেদা জিয়াকে বিদেশে নেয়ার আবেদন নাকচ করেছে আইন মন্ত্রণালয়। অন্যদিকে, রবিবার (১ অক্টোবর) বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে চিকিৎসার জন্য বিদেশে পাঠানোর অনুমতি চেয়ে করা আবেদন নাকচ করে দিয়েছে আইন মন্ত্রণালয়।

রবিবার সচিবালয়ে সাংবাদিকদের একথা জানান আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। তিনি জানান যে সাবেক প্রধানমন্ত্রীর পরিবারের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো একটি আবেদন পাওয়ার পর, আইন মন্ত্রণালয় এ অভিমত ব্যক্ত করে।

কবির আহমেদ/ইবিটাইমস 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »