তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় ও সংসদের কাছে আত্মঘাতী হামলা

তুরস্কের সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, দুই হামলাকারী মারা গেছে

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ রবিবার (১ অক্টোবর) সকালে প্রচণ্ড বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারা। তুরস্কের সরকার তাৎক্ষণিকভাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ে বোমা হামলার কথা স্বীকার করেছে। আত্মঘাতী হামলা ছাড়াও প্রচণ্ড গোলা গুলির শব্দও শোনা গেছে।

তুরস্কের স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমের তথ্য অনুযায়ী, দুই হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে জানা গেছে। তাদের একজন নিজেকে বিস্ফোরণে উড়িয়ে দিয়েছে, অন্যজন নিরাপত্তা বাহিনীর হাতে নিহত হয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রকাশিত বিভিন্ন ছবিতে দেখা গেছে ঘটনাস্থলে অসংখ্য পুলিশ এবং জরুরি পরিষেবার যানবাহন মোতায়েন করা হয়েছে।

তুরস্কের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আলি ইয়ারলিকায়া তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় তুরস্কের সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, “সকাল সাড়ে ৯টার দিকে, একটি হালকা বাণিজ্যিক গাড়িতে থাকা দুই সন্ত্রাসী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের জেনারেল ডিরেক্টরেট অফ সিকিউরিটির প্রবেশদ্বারের সামনে থামে।” তারপর তারা সেখানে কর্মরত নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়তে থাকে।গুলি বিনিময়ে দুই পুলিশ কর্মকর্তা আহত হয়েছেন। পুলিশের গুলিতে একজন আক্রমণকারী সাথে সাথেই নিহত হয়। অপরজন নিজের সাথে রাখা বিস্ফোরণ ঘটনালে সেও বিস্ফোরণের সাথে ছিন্ন বিচ্ছিন্ন হয়ে উড়ে যায়।

সংবাদ মাধ্যম আরও জানিয়েছে,আত্মঘাতী হামলার স্থানটি তুরস্কের জাতীয় সংসদের একেবারে সন্নিকটে। যেখানে সাংসদরা গ্রীষ্মের বিরতির পরে এই রবিবার প্রথমবারের মতো বৈঠক করছেন। এই বৈঠকে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগানের উপস্থিতিও প্রত্যাশিত ছিলেন। এই হামলার ঘটনার পর পরই তুরস্কের পাবলিক প্রসিকিউটর অফিস তদন্ত শুরু করেছে।

তুরস্কের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা আনাদোলু জানিয়েছে, প্রাথমিকভাবে নিরাপত্তাজনিত কারনে দেশের অত্যন্ত স্পর্শকাতর স্থানে এই আত্মঘাতী হামলার বিষয়ে একটি সংবাদ ব্ল্যাকআউট আরোপ করা হয়েছিল।

কবির আহমেদ/ইবিটাইমস 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »