সরকারের প্রজ্ঞাপনে ৪৫ দিন পর চালু হলো চরফ্যাসন-ঢাকা লঞ্চ চলাচল

চরফ্যাসন(ভোলা) : করোনার প্রভাবে দ্বিতীয় দফায় লকডাউনে সরকারের বিধি নিষেধের কারনে দীর্ঘ ৪৫ দিন বন্ধ থাকার পর আজ সোমবার চালু হলো চরফ্যাসন – ঢাকা যাত্রীবাহী লঞ্চ।

দীর্ঘদিন পর লঞ্চ চালু হওয়ায় খুশি সাধারণ যাত্রী, ব্যবসায়ী,লঞ্চ কর্তৃপক্ষ,ইজারাদার সহ পরিবহন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। চরফ্যাসন টু ঢাকা নিয়মিত তিনটি লঞ্চ ছাড়ার কথা থাকলেও আজকে মাত্র একটি লঞ্চ ছেড়ে যায়। বাকি দুটি লঞ্চ ঢাকা থেকে ছেড়ে আসার কথা রয়েছে।

এ ব্যাপারে কর্ণফুলী ১৩ লঞ্চের সুপার ভাইজার বলেন,লঞ্চ বন্ধ থাকার কারনে আমরা অনেকটা মানবেতর জীবনযাপন করতে হয়েছে। এখন থেকে নিয়মিতভাবে যদি লঞ্চগুলো চলাচল করে তাহলে আমার অন্তত পরিবারের মুখে কিছুটা হলেও হাসি ফুটাতে পারবো। সরকারের দেয়া এই বিধিনিষেধের কারণে সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে আমাদের।

চরফ্যাসন বাজারের গার্মেন্টস ব্যাবসায়ী ইকবাল কাজী বলেব লঞ্চে আমাদের মালামাল পরিবহন থেকে আমাদের পরিবার পরিজন নিয়ে যেভাবে ভ্রমন করতে পারি সেটি স্থল পথে হয়না। আমাদের জন্য লঞ্চ আশীর্বাদ স্বরুপ।

বেতুয়া ঘাট ইজারাদার এর পক্ষ থেকে নুরে আলম মাস্টার বলেন, দীর্ঘ দেড়মাস লঞ্চ বন্ধ থাকার কারনে ঘাটের প্রায় বিশলক্ষ টাকার ও বেশী ক্ষতি হয়েছে।

সালমা নামের একজন যাত্রী বলেন, আমি ঢাকা থেকে এসেছি দীর্ঘ ২ মাস পূর্বে আজ যাওয়ার সুযোগ হয়েছে এ জন্য আল্লাহর কাছে শুকরিয়া আদায় করছি আলহামদুলিল্লাহ।

সফি উল্লাহ একজন যাত্রী বলেন, আমি ঢাকায় থাকতাম আমার মাকে দেখার জন্য গত লকডাউনের আগে বাড়ী এসেছি এতোদিন যাওয়ার চেষ্টা করে ও যেতে পারিনাই।

সরকারের নিয়মের মধ্য থেকে লঞ্চ চলাচল করছেন বলে কর্ণফুলী – ১৩ লঞ্চের স্টাফরা জানিয়েছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনেই যাত্রী উঠবে এবং প্রত্যেক যাত্রীকে আমরা মাস্ক সরবরাহ করছি।

জামাল মোল্লা/ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »