বুধবার কিছু বিধিননিষেধের মধ্যে দিয়েই অস্ট্রিয়ায় খুলছে হোটেল-রেস্তোরা

ইউরোপ ডেস্কঃ আগামী বুধবার ১৯ মে থেকে সমগ্র অস্ট্রিয়ায় আবাসিক হোটেল ও রেস্তোরা খুলছে । তবে ভিয়েনার রাজ্য প্রশাসন রেস্টুরেন্ট খোলার সাথে সাথে কিছু কঠোর নিয়মাবলির নির্দেশ দিয়েছেন গ্যাস্ট্রো কর্মীদের জন্য। ভিয়েনায় গ্যাস্ট্রোনমি বা রেস্তোরা কর্মীদের জন্য করোনার পরীক্ষা এবং এফএফপি২ মাস্ক পরিধান করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

ভিয়েনা সিটি কাউন্সিলর ফর হেলথ পিটার হ্যাকার (SPÖ) অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ কে এক সাক্ষাৎকারে জানিয়েছেন যে, ফেডারেল রাজধানীতে ক্যাটারিং শিল্পে কর্মরতরা যখন কাজ করবেন তখন তাদের নিয়মিত করোনার পরীক্ষা করতে হবে এবং সপ্তাহে অন্তত একবার পিসিআর পরীক্ষা। অবশ্যই এফএফপি২ মাস্ক বাধ্যতামূলক পড়ে কাজ করতে হবে এবং অতিথিদের বেলায় খাবারের টেবিলে বসার পূর্ব পর্যন্ত মাস্ক পড়তে হবে। কর্মীদের এই পিসিআর পরীক্ষা প্রতি ৭২ ঘন্টার পর আবার নতুন করে করতে হবে।

এই বাধ্যবাধকতা কেবল কর্মী পরিবেশনকারীদের জন্যই নয়, সমস্ত কর্মচারী এবং উদ্যোক্তাদের জন্যও প্রযোজ্য। নিয়ন্ত্রণটি কেবল গ্রাহকের সাথে যোগাযোগের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য নয়, তবে সমস্ত কর্মচারীদের ক্ষেত্রেও প্রযোজ্য, অর্থাৎ রান্নাঘরের ক্ষেত্রে বা পরিষ্কারের ক্ষেত্রেও। এই অধ্যাদেশটি বুধবার ১৯ মে থেকে রেস্টুরেন্ট খোলার পর থেকে কার্যকর হবে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৪৭৬ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৬ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৯৬ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ১০৪ জন,Steiermark রাজ্যে ৮৯ জন, NÖ ৫৬ জন,Tirol রাজ্যে ৫১ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৩৮ জন,Kärnten রাজ্যে ২৩ জন,Salzburg রাজ্যে ১২ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৭ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী আজ সমগ্র অস্ট্রিয়ায় করোনার ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ২৮,৬০১ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনার মোট ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ৪০,৫৬,৩৩৫ ডোজ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৩৭,৫৭৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ১০,৪৮০ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৬,২১,৩০৭ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৯,৭৮৬ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ২৯৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ৯০৪ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ/ ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »