যাত্রীদের চাপে ফেরিতে মৃত্যু ৫ জনের

মাদারীপুর: বুধবার শিমুলিয়া-বাংলাবাজার রুটের এনায়েতপুরি ও শাহ পরান দুই ফেরিতে এক কিশোরসহ ৫জন মারা গেছে। ঈদ উপলক্ষে বাড়ি ফেরার সময় ফেরিতে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে শিবচর থানা পুলিশ জানিয়েছে, মারা যাওয়া কিশোরের নাম আনছার মাদবর (১২)। কিশোর আনছারের বাড়ি শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলায়। সে নড়িয়ার কালিকা প্রসাদ গ্রামের গিয়াস উদ্দিন মাদবরের ছেলে  এবং বাকি ৪ জনের ২ জন মহিলা ও ২ জন পুরুষের পরিচয় এখনো জানা যায়নি।

এদিকে ঘাটের প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, তিন নম্বর ফেরিঘাটে শাহ পরান নামের রোরো ফেরিটি থামলে ভীড়ের মধ্যে নামার সময় যাত্রীদের চাপে কিশোর আনছার মাদবর অসুস্থ হয়ে ফেরির পন্টুনেই মারা যায়। এরপর দুপুরে এনায়েতপুরি নামে একটি ফেরি শিমুলিয়া থেকে ছেড়ে আসে কিন্ত ফেরিটি ছাড়ার আগে প্রায় ৩ ঘন্টা শিমুলিয়া ঘাট থেকে ছাড়তে দেরি করে। প্রচন্ড তাপদাহ ও চাপের কারনে ফেরির মধ্য দুই মহিলা ও দুই পুরুষ মারা যায়। এছাড়া কমপক্ষে ২০জন অসুস্থ হয়ে পড়ে। মারা যাওয়া ব্যাক্তিদের পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ। তবে পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন শিবচর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিরাজ হোসেন।

মাদারিপুর/ইবিটাইমস/আরএন

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »