ভোলায় আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে লাশবাহী গাড়ী প্রদান

ভোলা জেলা প্রতিনিধি : ভোলায় আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে লাশবাহী গাড়ী হস্তান্তর করেছে আমেনা বেগম তহফিজুল কুরআন মাদ্রাসা নামে একটি প্রতিষ্ঠান। কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য ও রুপালি ব্যাংকের সাবেক পরিচালক মাহাবুবুর রহমান হিরন এর আর্থিক সহায়তায় ভোলা শহরের কালীবাড়ী রোডের মুকবুল জামে মসজিদের সামনে এই গাড়ি হস্তান্তর কররেন। এ সময় মাদ্রাসার পক্ষে আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলামের ভোলা শাখার সভাপতি সাবেক পৌর মেয়র আলহাজ্ব গোলাম নবী আলমগীরের হাতে গাড়িটির চাবি তুলে দেন মাহাবুবুর রহমান হিরণের বড় ভাই আবু কাশেম আবু মিয়া।

দীর্ঘদিন ধরে লাশ বহন করতে গিয়ে ভোলা বাসী নানা ভোগান্তির স্বীকার হতো। এই প্রথম লাশবাহী গাড়ি পেলো ভোলাবাসী। এর আগে পৌর সভার ময়লা অপসারনের গাড়িতে করে লাশ আনা নেয়া করা হতো।

এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন ভোলা জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ- সভাপতি ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার দোস্ত মাহামুদ, আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলাম সাধারন সম্পাদক মুহাম্মদ শওকাত হোসেন, সহ-সভাপতি সাবেক সিভিল সার্জেন ডা. অব্দুল মালেক, সাংগঠনিক সম্পাদক হাফেজ মো:বনি আমিন, পৌর সভার সাবেক কমিশনার হুমায়ুন কবির সোপান, আমিনুল ইসলাম, সাংবাদিকগন প্রমুখ। এই গাড়ি পাওয়ায় পর ভোলার মানুষের দীর্ঘদিনের একটি দূ:খ লাগব হলো । পরে দোয়া মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয় ।

উল্লেখ্য, ভোলা জেলা আঞ্জুমান মফিদুল ইসলাম ২০০৮ সাল থেকে ভোলা জেলা বেওয়ারিশ লাশে দাফন ও সৎকার কাজ করে আসছেন। হস্তান্তর অনুষ্টানে অঞ্জুমান মুফিদুল ইসলামের সাধারন সম্পাদক মুহাম্মদ শওকাত হোসেন বলেন, যে কাজ টি ভোলার কোন মানুষে করেনা সেই কাজটিই করেন আঞ্জুমানে মুফিদুল ইসলাম। আমরা এ পর্যন্ত ২২০ টির মত গলিত বেওয়ারিশ লাশ মাটি দিয়েছি। কবরের যায়গাও প্রায় শেষের দিকে। পাশে আরেকটি জমি দেখেছি কিছু টাকা জোগার হয়েছে আর কিছু টাকা হলেই ওই জমিটিও ক্রয় করে নিতে পারবো ইনশা আল্লাহ। এ ছাড়া প্রতিটি লাশ কবর দিতেও অনেক টাকার প্রয়োজন হয়। ভোলার বৃত্তবানসহ সকলকে এই মহতি কাজগুলো করার জন্য এই পবিত্র রমজানে এগিয়ে আসার আহব্বানো জানান তিনি।

সাব্বির আলম বাবু/ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »