ভারতে চরম অক্সিজেন-শয্যা সংকট, টিকার জন্যও হাহাকার

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতে কোনোভাবেই লাগাম টানা যাচ্ছে না করোনা সংক্রমণের। গেল একদিনে আবারও রেকর্ড চার লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। শুধু দিল্লিতেই প্রতিদিন ২৫ হাজারের বেশি মানুষ আক্রান্ত হচ্ছেন। ফল অক্সিজেন ও শয্যা সংকট এখনও চরমে। এ অবস্থায় দিল্লির লকডাউনের মেয়াদ আরও এক সপ্তাহ বাড়ানো হয়েছে।

রাজধানী নয়াদিল্লিসহ এর পাশপাশের এলাকায় অক্সিজেনের জন্য চরম হাহাকার। এই চরম সংকটের সময় ওড়িশা থেকে দুটি ট্রেনে করে ১০০ টনের বেশি অক্সিজেনবাহী ট্যাংকার নিয়ে আসা হয়েছে দিল্লির ফরিদাবাদে। এদিকে, দিল্লিতে এখনও প্রতিদিন গড়ে ২৫ হাজারের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন। হাসপাতালগুলোতেও রেকর্ডসংখ্যক রোগী ভিড় করছেন। শয্যার অভাবে অনেকের স্থান হয়েছে হাসপাতালের বাইরে। দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করেও পাচ্ছেন না প্রয়োজনীয় অক্সিজেন।

এদিকে, মুম্বাইয়ের অবস্থাও বেশ নাজুক। উপায় না পেয়ে টিকার পেছনে দৌড়াচ্ছেন সবাই। বিশেষ করে ১৮ বছর বয়সের ওপরে সবাইকে টিকাদান কর্মসূচির আওতায় আনার কার্যক্রম শুরুর পর থেকে দলে দলে টিকা নিতে যাচ্ছেন মানুষ। তবে অনেককেই টিকা না নিয়ে ফিরে আসতে হচ্ছে। টিকার সংকটও মেটাতে এরই মধ্যে ভারতের বাইরে টিকা উৎপাদনের ঘোষণা দিয়েছে ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান সেরাম ইনস্টিটিউট। আগামী জুলাইয়ের মধ্যে প্রতি মাসে ১০ কোটি ডোজ টিকা উৎপাদনের আশা করছে প্রতিষ্ঠানটি।

করোনায় বিপর্যস্ত ভারতের পাশে এসে দাঁড়িয়েছে বিভিন্ন দেশ। করোনা মোকাবিলায় ১২০টি ভেন্টিলেটর পাঠিয়েছে জার্মানি। প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরঞ্জামসহ মেডিকেল সহায়তা পাঠিয়েছে ফ্রান্স। এছাড়া রাশিয়ার পক্ষ থেকেও দেড় লাখ ডোজ স্পুটনিক-ভি পাঠানো হয়েছে।

আ. ডেস্ক/ইবিটাইমস/আরএন

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »