গ্রীষ্মে জার্মানি সহ ইউরোপের অধিকাংশ দেশ কিছুটা স্বাভাবিক জীবনে ফিরবে

ইউরোপ এখন করোনার সর্বশেষ রাউন্ডে রয়েছে,গ্রীষ্মে ভাল থাকবে

ইউরোপ ডেস্কঃ জার্মানির প্রধান বিরোধী রাজনৈতিক দল SPD এর স্বাস্থ্য বিষয়ক বিশেষজ্ঞ রাজনীতিবিদ কার্ল লটারবাচ বলেন,”আমরা এখন করোনার শেষ রাউন্ডে।” তিনি আরও জানান,জার্মানির প্রায় অর্ধেক জনসংখ্যার করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নেওয়ার পর এখন সংক্রমণের বিস্তার ধীরে ধীরে কমে আসছে।

শনিবার সন্ধ্যায় টুইটারে লটারবাচ লিখেছেন, “মে মাসের শেষের দিকে জার্মানতে করোনার সংক্রমণ প্রতি একলাখ জনপদে সংক্রমণ ৫০ এর নীচে নেমে আসবে। আমরা এখন চূড়ান্ত লড়াইয়ের সর্বশেষ রাউন্ডে এসে গেছি। তিনি আশা করছেন জার্মানি সহ ইউরোপের অধিকাংশ দেশই গ্রীষ্ম ভাল অবস্থায় ফিরে আসবে।

জার্মানির করোনার পরিসংখ্যান রাখা প্রতিষ্ঠান রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউট (RKI) জানিয়েছেন যে,আজ জার্মানিতে করোনায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৭,৭১০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৮৮ জন গত এক সপ্তাহে জার্মানিতে সংক্রমণের বিস্তার ক্রমশ কমে আসছে। প্রতিষ্ঠানটির পরিসংখ্যান অনুযায়ী জার্মানিতে বর্তমানে প্রতি এক লাখ জনপদে করোনায় আক্রান্ত ১৪৬.৫ জন।

জার্মানিতে এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩৪,২০,০৮৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৮৩,৭৯০ জন। করোনার থেকে সুস্থ হয়েছেন ৩০,২৪,৬০০ জন। জার্মানিতে বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩,১১,৬৯৩ জন এবং এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থার মধ্যে আছেন ৫,০৪৯ জন।

বার্লিন টেকনিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের গতিশীলতা বিষয়ক গবেষক কাই নাগেল বলেন,তিনি মনে করছেন করোনার সংক্রমণ আর বাড়বে না। তাছাড়াও জার্মানির Göttingen এর ডায়নামিকস অ্যান্ড সেল্-অর্গানাইজেশন ফর ম্যাক্স প্ল্যাঙ্ক ইনস্টিটিউটের পদার্থবিদ ভায়োলা প্রিজিম্যান এর মতে, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে জার্মানি সহ ইউরোপে করোনার সংক্রমণের বিস্তার দ্রুত হ্রাসের আশা করছেন। গত  বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জার্মানির কোভিড ১৯ মহামারী সম্পর্কিত সংসদীয় উপদেষ্টা কমিটির এক শুনানিতে এই দুই বিশেষজ্ঞ আশার বাণী শুনিয়েছেন এবং তাদের পরিসংখ্যানের রিপোর্ট জমা দিয়েছেন। বর্তমানে ইউরোপের অধিকাংশ দেশেই করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিন খুব জোড়েসোড়েই প্রদান শুরু হয়েছে।

অস্ট্রিয়ার সংক্রমণ রোগ বিশেষজ্ঞরাও আগামী জুন মাসের মাঝামাঝির পর অস্ট্রিয়া অনেকটাই স্বাভাবিক পরিবেশে ফিরে আসবে বলে আশা করছেন। অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছেন যে,আগামী ১০ মে থেকে অস্ট্রিয়ায় সবার জন্য করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিনের নিবন্ধন করা হবে।

সংবাদ সংস্থার খবরে আরও বলা হয়েছে,আগামী ১৫ মে থেকে অস্ট্রিয়ার গর্ভবতী মহিলাদের করোনার ভ্যাকসিন প্রদানের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ১,৬২৫ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১২ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন ৪৮০ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ২৮৯ জন,Steiermark রাজ্যে ২৩৫ জন,NÖ রাজ্যে ১৬৫ জন,Tirol রাজ্যে ১৫৬ জন,Kärnten রাজ্যে ১১৯ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৮৭ জন,Salzburg রাজ্যে ৬১ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৩৩ জন নতুন করে সংক্রমিত শনাক্ত হয়েছেন।

আজ অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী করোনার ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ৪৪,৬৯৬ ডোজ এবং এই পর্যন্ত মোট ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ৩১,৭৬,৯২৪ জন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৬,২২,১১০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১০,২৪৫ জন।

করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৫,৮৯,৫৩৪ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২২,৩৩১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৪৭৬ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১,৫৬৬ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »