অস্ট্রিয়ার নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসাবে ডা.ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইনের শপথ গ্রহণ

ইউরোপ ডেস্কঃ আজ সোমবার সকালে অস্ট্রিয়ার রাস্ট্রপতি প্রাসাদে অস্ট্রিয়ার ফেডারেল রাষ্ট্রপতি আলেকজান্ডার ফান ডের বেলেন দেশের নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও সামাজিক বিষয়ক মন্ত্রী হিসাবে ডাক্তার ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইনকে (Wolfgang Mückstein) শপথ বাক্য পাঠ করিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে দেশের একজন নতুন মন্ত্রী হিসাবে অনুমোদন দেন।

উল্লেখ্য যে,গত সপ্তাহে অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার (গ্রিনস) স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করলে সরকারের উপ প্রধান ভার্নার কোগলার অনুশীলনরত চিকিৎসক ডাক্তার ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইন (গ্রিনস) এর নাম ঘোষণা করেন। অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন যে,নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইন ভিয়েনায় একটি প্রাথমিক যত্ন কেন্দ্রের সহ-মালিক ছিলেন এবং কোয়ালিশন সরকারের সহযোগী দল  গ্রিনসের  নিয়ন্ত্রণাধীন মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনে সক্রিয় সদস্য হিসাবে কর্মরত ছিলেন।

অস্ট্রিয়ার রাষ্ট্রপতি শপথ ও স্বাক্ষর অনুষ্ঠানের শেষে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন,তিনি নিজেও গ্রিনসের নিয়ন্ত্রণাধীন মেডিকেল গ্রুপের একজন রোগী। তিনি এই গ্রুপে নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী অনেক গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগামী কাজ করেছেন বলে তার ভূয়সী প্রশংসা করে। ফান ডের বেলেন আশা প্রকাশ করে বলেন, দেশের চিকিত্সকরা জনগণের মধ্যে সর্বোচ্চ স্তরের আস্থা উপভোগ করছেন: “আমি নিশ্চিত যে আপনি স্বাস্থ্যমন্ত্রী হিসাবেও এই বিশ্বাসকে আরও বাড়িয়ে তুলতে পারবেন।”

রাষ্ট্রপতি করোনা মহামারীর মধ্যে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কাজগুলিকে “চ্যালেঞ্জিং” বলেছেন।  মহামারীটি নিয়ন্ত্রণে রাখা কেবল গুরুত্বপূর্ণ নয়।  সমাজের একটি সম্ভাব্য বিভাগকেও মোকাবিলা করতে হবে, সামাজিক উত্থান অবশ্যই থাকতে হবে। তবে সামগ্রিকভাবে রাষ্ট্রপতি “আত্মবিশ্বাসী” যে সংকট একসাথে কাটিয়ে উঠবে।

তিনি আরও যোগ করে বলেন,বৈশ্বিক মহামারীর করোনায় শুধুমাত্র স্বাস্থ্যমন্ত্রীর নিজের পক্ষে একা কিছু করা সম্ভব না। শতাব্দীর এই মহামারীর সংকট সমাধান করতে পুরো সরকার, রাজ্য গভর্নর, মেয়র, স্বাস্থ্য ও নার্সিং কর্মচারী এবং পুরো জনগণের সম্মিলিত চেষ্টার প্রয়োজন।

রাষ্ট্রপতি আরও বলেন, দেশে করোনার প্রতিষেধক ভ্যাকসিন প্রদানের গতি বাড়ার ফলে এবং সরকারের প্রয়োজনীয় জরুরী পদক্ষেপের ফলে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা হ্রাস পাচ্ছে।  অতএব তিনি খুব আশাবাদী যে লোকেরা শীঘ্রই আবার স্বাভাবিক জীবনে অর্থাৎ একে অপরের সাথে দেখা করতে এবং আমন্ত্রণ জানাতে সক্ষম হবে: “সম্ভবত আমরা খুব শীঘ্রই আবারও  একে অন্যের সাথে হাত মিলাতে পারবো।

নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রীর শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে রাস্ট্রপতি প্রাসাদে আরও উপস্থিত ছিলেন অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ এবং সরকারের উপ প্রধান ভার্নার কোগলার। নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী Dr.Wolfgang Mückstein বিবাহিত এবং তার দুইটি কন্যা সন্তান রয়েছে।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা.ভল্ফগ্যাং মুকস্টাইন ১৯৭৪ সালের ৫ ই জুলাই ভিয়েনায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৯৩ থেকে ২০০২ পর্যন্ত ভিয়েনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে মেডিসিনের উপর স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন। তাছাড়াও তিনি ঐতিহ্যবাহী চীনা চিকিৎসা শাস্ত্রেও ব্যাচেলর ডিগ্রি লাভ করেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২,১১৭ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২৪ জন।রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন ৬৭০ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৩৩২ জন,NÖ রাজ্যে ৩১১ জন,Steiermark রাজ্যে ২৪২ জন,Tirol রাজ্যে ১৯৮ জন,Vorarlberg রাজ্যে ১২৯ জন,Kärnten রাজ্যে ৯৪ জন,Salzburg রাজ্যে ৯১ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৫০ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ার স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী রবিবার সকাল থেকে সোমবার সকাল পর্যন্ত অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনার ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ২০,৮৪৫ ডোজ। অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত ভ্যাকসিন প্রদান করা হয়েছে ২৪ লক্ষ ৭৭ হাজার ৯৩২ ডোজ।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৯৫,৫৪০ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৫,৫৭,৪৬৭ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৫,৫৭,৪৬৭ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৮,১৫১ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৫৭০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,১০০ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »