ইইউর অনলাইন শীর্ষ সম্মেলনে অতিরিক্ত ভ্যাকসিন চাওয়ায় কুর্জের সমালোচনায় দ্রাঘি

ইউরোপ ডেস্কঃ আজ ইইউর এক অনলাইন ভার্চুয়াল শীর্ষ সম্মেলনে ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি অস্ট্রিয়ার সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের অস্ট্রিয়ার জন্য আরও অতিরিক্ত ভ্যাকসিন চাওয়ায় তীব্র সমালোচনা করেছেন। তিনি বলেন,চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জেরবুঝা উচিৎ করোনায় ইউরোপের অন্যতম ক্ষতিগ্রস্থ দেশ ইতালিতে করোনার ভ্যাকসিনের যথেষ্ট ঘাটতি রয়েছে। তিনি আরও বলেন,কুর্জ একটি অতিরিক্ত ডোজও পাবেন না।

অস্ট্রিয়ার ফেডারাল চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ (ÖVP) ইইউর যৌথ সিদ্ধান্ত সম্পর্কে “খুশি, স্বস্তি ও সন্তুষ্ট” ছিলেন যে, “দশ কোটির অতিরিক্ত ভ্যাকসিনের ডোজগুলি নিশ্চিত করবে যে, দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ইইউতে ভ্যাকসিনগুলি আরও সুষ্ঠুভাবে সরবরাহ করা হবে”, অন্যরা আরও সতর্কতার সাথে প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছিলেন। ইতালির প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘি কুর্জকে‘অস্ট্রিয়ার অতিরিক্ত ডোজ দেওয়ার দাবির তীব্র সমালোচনা করেছেন” আমাদেরও ভ্যাকসিনের ঘাটতি রয়েছে, কুর্জ একটি অতিরিক্ত ডোজও পাবেন না। ইতালির বহুল জনপ্রিয় “দৈনিক পত্রিকা” লা রেপব্লিকা “তাদের অনলাইন প্রকাশনায়ও প্রধানমন্ত্রী মারিও দ্রাঘির কুর্জের সমালোচনার কথা জানিয়েছেন।

ইইউ পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট ডেভিড সাসোলি পরিস্থিতিটিকে একইভাবে দেখছেন। তিনি বলেন,ইইউর বাহিরের দেশের সমস্যাকে আনা “দায়িত্ব জ্ঞানহীন”বলে জানান তিনি। অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানান ইইউর এক কূটনীতিক বলেছেন, সেবাস্তিয়ান কুর্জ জুয়া খেলছেন। ডাচ প্রধানমন্ত্রী মার্ক রুট বলেছেন, সংখ্যার দিকে নজর দেওয়া থেকে দেখা যায় যে বিশেষত বুলগেরিয়া, লাটভিয়া এবং ক্রোয়েশিয়ার একটি সমস্যা রয়েছে। সেবাস্তিয়ান কুর্জ তাদের সাহায্য করতে চান। তিনি আরও বলেন,ইইউর বন্টন অনুযায়ী অস্ট্রিয়ার ভ্যাকসিন বিতরণে কোন সমস্যা দেখতে পাচ্ছেন না।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কুর্জ পরিস্থিতিটিকে ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করে বলেন,আমরা ইউরোপীয় ইউনিয়নে ভ্যাকসিনগুলির সুস্পষ্ট প্রসারের জন্য কঠোর পরিশ্রম করেছি। “অনেক রাজ্য আরও ন্যায়বিচার ও সংহতির পক্ষে কথা বলার পরে, একটি যৌথ সিদ্ধান্ত হয়েছিল যে,দশ কোটির অতিরিক্ত ডোজ দ্বিতীয় কোয়ার্টারে ইইউতে ভ্যাকসিনগুলির আরও সুন্দর বিতরণ করবে”। অতিরিক্ত ডোজ আমরা আমাদের দেশের জন্যই চেয়েছি।

এদিকে অস্ট্রিয়ায় আজ নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩,৮৯৫ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২২ জন। সংক্রমণ বিশেষজ্ঞরা সতর্ক করে বলেছিলেন যে,এপ্রিলে অস্ট্রিয়ায় করোনার প্রতিদিনের সংক্রমণ পুনরায় ৬,০০০ হাজারে উঠতে পারে। আজকের এই প্রায় চার হাজারের কাছাকাছি সংক্রমণ সনাক্ত বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কার দিকেই ধাবিত হচ্ছে বলে মনে হচ্ছে।

আজ রাজধানী ভিয়েনায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ১,০২২ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৮৩৪ জন,OÖ রাজ্যে ৬৮৮ জন,Steiermark রাজ্যে ৪৮৬ জন,Tirol রাজ্যে ৩১০ জন,Salzburg রাজ্যে ১৯১ জন,Kärnten রাজ্যে ১৮০ জন,Burgenland রাজ্যে ১২১ জন এবং Vorarlberg রাজ্যে ৬৩ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৩০,২৮৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৯,২০০ জন।করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৪,৮৬,০৮৮ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৩৫,০০০ হাজার মানুষ। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৪৬৩ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,১৫১ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »