ভ্যাকসিন নিতে এসে অস্ট্রিয়া সেন্টারে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে মহিলার মৃত্যু

ইউরোপ ডেস্কঃ আজ ভিয়েনার অস্ট্রিয়া সেন্টারে ৫৮ বৎসর বয়স্ক একজন মহিলা করোনার ভ্যাকসিন নিতে এসে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে যান। তাকে দ্রুত প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পরেও বাঁচানো সম্ভব হয় নি।

অস্ট্রিয়ার সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন,রবিবার সকালে ভিয়েনার ২২ নাম্বার ডিস্ট্রিক্ট ডোনাওস্টাড্টের অস্ট্রিয়া সেন্টারে ইম্ফস্ট্রাসে এই হৃদয়বিধারক ঘটনা ঘটে। অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ কে এমবুলেন্স সার্ভিস সামারিটারবুন্ড অ্যাসোসিয়েশনের একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন,৫৮ বছর বয়স্ক মহিলা যিনি করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিতে এসেছিলেন,তিনি লাইনে দাঁড়ানো অবস্থায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে দ্রুত মৃত্যুবরণ করেন।

সামেরিটার অ্যাসোসিয়েশনের প্যারামেডিক সাহায্যকারীরা তৎক্ষণাৎ প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ব্যর্থ হন।”সামারিটান অ্যাসোসিয়েশনের মুখপাত্র আরও জানান,মহিলাকে সত্যিই দ্রুত প্রাথমিক চিকিত্সা দেওয়া হয়েছিল কারণ অনেক প্যারামেডিকস এবং জরুরী চিকিৎসকরা ঘটনাস্থলেই ছিলেন। তিনি সংবাদ সংস্থাকে নিশ্চিত করে বলেন, ভ্যাকসিন প্রদানের সাথে মহিলার মৃত্যুর কোন সম্পর্ক নাই।

ভিয়েনার সিটি কাউন্সিলর ফর হেলথ পিটার হ্যাকার (SPÖ) ভ্যাকসিন গ্রহণ করতে এসে মহিলার মৃত্যুতে এক শোক বার্তায় নিহতের স্বজনদের প্রতি সমবেদনা এবং গভীর সহানুভূতি প্রকাশ করেছেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২,৫০৩ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ১৭ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৫৭৯ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৬৬৯ জন,OÖ রাজ্যে ৩৯৫ জন,Steiermark রাজ্যে ২৯৩ জন,Salzburg রাজ্যে ১৭১ জন,Tirol রাজ্যে ১৬২ জন,Kärnten রাজ্যে ১২৯ জন,Burgenland রাজ্যে ৭৯ জন এবং Vorarlberg রাজ্যে ২৬ জন নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪,৯৩,৫৬৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৮,৮৭৩ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন মোট ৪,৫৭,২৬৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২৭,৪২৯ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৩৬০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১,৬৬১ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »