ভোলায় শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

ভোলা প্রতিনিধি: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের মনগড়া হঠকারী সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভোলা জেলার সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে সকল সেক্টরের ছাত্র-ছাত্রীর অংশগ্রহণে ভোলা প্রেসক্লাব এর সামনে বিশাল মানববন্ধন ও প্রতিবাদ  সমাবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আয়োজিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিলে সাধারন শিক্ষার্থীরা তাদের বক্তব্যে জানান, বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী তার দায়িত্ব সমানভাবে পালন করবে এটাই স্বাভাবিক, কিন্তু আমরা দেখতে পাচ্ছি যে এক দেশে দুই নীতি, সরকারী কলেজে সহজ নীতি আর  জাতীয়   বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য কঠিন নীতি করে বৈষম্য করছে।

সারা দেশে সব কিছুই চলছে আগেরই মত,  শুধু কি কলেজে করোনা ? এই করোনার দোহায় দিয়ে দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থাকে পরিকল্পিত ভাবে ধ্বংস করে দেওয়া হচ্ছে। এমনকি ছাত্র-ছাত্রীরা ভিন্ন পথে ধাবিত হচ্ছে। কিছু কিছু দুষ্ট রাজনীতিবিদ ও কুচক্রি মহলের কারনে আজ সারাদেশে শিক্ষা ব্যবস্থাকে পঙ্গু করার পায়তারা করছে সরকারকে ভুল বুঝিয়ে।

আপনারা অবগত আছেন যে,গত ২২/০২/২১ ইং তারিখে মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল বিশ্ববিদ্যালয়ের চলমান পরীক্ষা স্থগিত করছেন। আমরা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শিক্ষামন্ত্রীর এই হটকারী সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি এবং সাথে তার এই সিদ্ধান্ত বাতিল করে পরীক্ষা গ্রহনের আহবান জানাচ্ছি।

বিশেষ অবগতির জন্য জানাচ্ছি যে, চলমান  চতুর্থ ও মাষ্টর্স পরীক্ষা গত মার্চেই অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা থাকলেও করোনা সংকটের কারনে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনেন পক্ষে পরীক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়নি।এদের ২০১৭,১৮,১৯,ও ২০২০ সেশনের মাষ্টার্স অধ্যায়নরত শিক্ষার্থী ২০২১ সালেও বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা সমাপনীতে পৌছাতে পারেনি। টানা সেশন জটের পর যখন সংকট উত্তরনের অবস্থা ঠিক সেই মুহূর্তে এই সিদ্ধান্ত আমাদের জীবনে কালো অধ্যায় বলে বিবেচিত হয়েছে।

করোনা পরিস্থিতিতে সকল সামাজিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক,হাট,বাজার, এমনকি পর্যটককেন্দ্র গুলোতে লোক সমাগম বেশি হওয়ায় রাস্তায় ঘুমাচ্ছে। এত কিছু চলমান থাকলেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা স্থগিত করা কোন সুস্ত্য মস্তিষ্কের মানুষের পক্ষে অন্তত মেনে নেওয়া সম্ভব নয়।

তারা আরো বলেন,পরীক্ষা নেওয়ার জন্য যারা আন্দোলন করেছে,তাদের উপর পুলিশি  হামলা ও অন্যায়ভাবে তাদের গ্রেপ্তারের তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। এ সময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, শিক্ষামন্ত্রী, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রশাসনের কর্মকর্তাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে অতিদ্রুত চলমান পরীক্ষার স্থগিত আদেশ প্রত্যাহার করে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে পরীক্ষা  নেওয়া ও পর্যায়ক্রমে স্কুল, কলেজ খোলার  দাবি জানাচ্ছি।

আগামী ৭ দিনের আল্টিমেটাম দিয়ে তারা একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করে মিছিলটি প্রেস চত্বর থেকে নতুন বাজার হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়কে প্রদক্ষিন করে সমাপ্ত করে। সা.শিক্ষার্থী এইচ এ শরীফ এর সভাপতিত্বে মুজাহিদ সামীম এর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন ভোলা সচেতন নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব এস.এম বাহাউদ্দীন, ইংরেজি বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র এইচ এ শরীফ ও ইয়াসির আরাফাত, ৪র্থ বর্ষের ছাত্রী আসমাউল হুসনা হ্যাপী, ব্যবস্থাপনা বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র আব্দুল আজিজ, আইন বিভাগের ছাত্র ইয়ামিন হাং, মোস্তাফিজুর রহমান,গাজী ইমরান, দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র শিহাব উদ্দিন, ইব্রাহিম, গণিত বিভাগের ৪র্থ বর্ষের ছাত্র ইউছুফ তুমির,ইমরানসহ অনেকেই।

মানববন্ধনে আরো উপস্থিত ছিলেন, অর্থনীতি বিভাগের মেধাবী ছাত্র মোঃ নকিব, ব্যবস্থাপনা বিভাগের মোঃ নিজামুদ্দিন, ইংরেজি বিভাগের ছাত্র আঃ মান্নান, নাম না জানা অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীরা।

সাব্বির আলম বাবু /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »