না ফেরার দেশে চলে গেলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে সাবেক অধ্যাপক এবং যুক্তরাজ্য বিএনপির উপদেষ্টা ডক্টর কে এম মালেক

ইউরোপ ডেস্কঃ যুক্তরাজ্যের (বৃটেন) বাংলাদেশী কমিউনিটির সিনিয়র সিটিজেন এবং যুক্তরাজ্য বিএনপির উপদেষ্টা ডক্টর কে এম এ মালেক ১৬ই ফেব্রুয়ারী রাত ১০ টায় লন্ডনের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন (ইন্নালিল্লাহি ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন)।

কিছুদিন পূর্বে ডঃ মালেকের ওপেন হার্ট সার্জারি হয়েছিল এবং আইসিইউতে থাকা অবস্থাতেই তিনি সকলকে ছেড়ে না ফেরার দেশে মহান আল্লাহর ডাকে সারা দিয়ে চলে যান।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৭  বৎসর। তিনি মৃত্যুকালে ৩ মেয়ে,নিকটাত্মীয় সহ অনেক গুণাগ্রাহী ও ভক্ত রেখে গেছেন ।  কর্মজীবনে  তিনি দীর্ঘদিন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসাবে দায়িত্ব পালন করেছেন এবং পরবর্তীতে তিনি যুক্তরাজ্যের কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপক হিসাবে দায়িত্ব পালন করা অবস্থায় অবসর গ্রহণ করেন।

যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী বাংলাদেশী কমিউনিটির অত্যন্ত পরিচিত মুখ,সর্বজন শ্রদ্ধেয় ব্যক্তিত্ব ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক অধ্যাপক ডক্টর কে এম এ মালেক ছিলেন যুক্তরাজ্যের অনেক সামাজিক,সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবি সংগঠনের সাথে জড়িত। তিনি যুক্তরাজ্য বিএনপির একজন উপদেষ্টাও ছিলেন। তিনি ছিলেন ফ্যাসিবাদ ও আধিপাত্য বিরোধী আন্দোলনের একজন অগ্রণী সেনা ।

অধ্যাপক ডক্টর কে এম এ মালেকের বাংলাদেশে গ্রামের বাড়ি মাদারীপুর জেলার শিবচর উপজেলার বহেরাতলা উত্তর ইউনিয়নের সেনেরবাট গ্রামে। তারঁ মৃত্যুর সংবাদে নিজ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। দেশের এই কৃতি সন্তানের নিজ এলাকার বিভিন্ন কার্যক্রমের স্মৃতিচারণ করে আবেগময় পোস্ট দিচ্ছেন।

অধ্যাপক ডক্টর কে এম এ মালেকের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন যুক্তরাজ্য বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক হাসনাত  কবির খান রিপন। তিনি এক শোক বার্তায় তার রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। তার মৃত্যুতে আরও শোক প্রকাশ করেছেন লন্ডন থেকে প্রকাশিত অনলাইন পোর্টাল শিবচর নিউজ 24 সহ লন্ডনে বসবাসরত শিবচর এলাকাবাসী।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »