বিশ্বে স্বীকৃত ৪ টি করোনার ভ্যাকসিন, স্পেন নিজ দেশে তৈরী করবে

ইউরোপ ডেস্কঃ স্পেনের ফার্মাসিউটিক্যালস প্রতিষ্ঠান “Rovi” ইতিমধ্যেই মোডার্নার (Moderna) ভ্যাকসিন তৈরীর কাজ শুরু করে দিয়েছে! স্পেনের সেক্রেটারি জেনারেল অফ ইন্ডাস্ট্রি এবং এসএমই এস (SMEs) রাউল ব্লাঙ্কো সোমবার মাদ্রিদে এক সাংবাদিক সম্মেলনে একথা ঘোষণা করেন। স্পেন নিজের দেশে বর্তমান বিশ্বে স্বীকৃত কোভিড-১৯ প্রতিরোধের জন্য ভ্যাকসিন তৈরী করবে। স্পেনের সরকারী কর্মকর্তারা বিশ্বাস করেন যে, এটি দেশের টিকা অভিযানকে আরও গতিময় করবে।

স্পেন নিজ দেশেই যুক্তরাষ্ট্রের করোনার ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মোডার্নার ভ্যাকসিন তৈরী শুরু করার ফলে যুক্তরাষ্ট্র থেকে সরবরাহ প্রায় বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।  রাউল ব্লাঙ্কো বলেন,এটি অবশ্যই স্পেনের জন্য একটি বড় সুসংবাদ যে,স্পেন তার নিজের দেশেই করোনার ৪ টি ভ্যাকসিন উত্পাদন করবে। স্প্যানিশ কর্মকর্তারা বলেছেন,স্পেনের বিভিন্ন ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানকে বিভিন্ন ভ্যাকসিন তৈরীর কাজ ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। যেমন,এরমধ্যে “ইনসুড ফার্মা” অ্যাস্ট্রাজেনেকা-অক্সফোর্ড ভ্যাকসিনের শিশি তৈরি করবে, “রিগ জোফ্রে জানসেন” ভ্যাকসিন তৈরি করবে “বায়োফাব্রি” এবং “নোভাভ্যাক্স” ভ্যাকসিন উত্পাদন করবে।

স্পেনের শিল্প,বাণিজ্য ও পর্যটনমন্ত্রী রেয়েস মারোটো ব্লাঙ্কোর কথায় প্রতিধ্বনিত করে যোগ করেছেন যে, সরকার এখন অন্য ফার্মাসিউটিক্যাল প্ল্যান্টের সাথে পঞ্চম চুক্তি বন্ধের দিকে তাকিয়ে রয়েছে।”এটি স্পেনের এই ভ্যাকসিনগুলির বিতরণকে ত্বরান্বিত করবে এবং আমরা আরও কাজ করছি যাতে স্পেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের পরিপ্রেক্ষিতে সক্রিয় নীতিগুলি (ভ্যাকসিনগুলির) তৈরী করতে এবং ওষুধের বোতল সংরক্ষণ ও সঞ্চয় করার ক্ষেত্রে খুব ভাল অবস্থানে রয়েছে।”

মন্ত্রী আরও বলেন,”এটি একটি সুসংবাদ,” স্পেন ভ্যাকসিনের সহজলভ্যতা এবং সহজ বন্টনের ক্ষেত্রে আরও বেশি স্বায়ত্তশাসন অর্জন করবে,তাই স্পেন এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তাছাড়াও স্পেনের এই নিজ দেশে ভ্যাকসিন তৈরীর সিদ্ধান্ত ইইউর “শিল্প সার্বভৌমত্ব” বজায় রাখার মূল বিষয়টিও প্রতিষ্ঠিত হবে।

যুক্তরাষ্ট্রের ভ্যাকসিন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান মোডার্নাও আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা দিয়ে জানিয়েছেন যে,তারা স্পেনের করোনার ভ্যাকসিন সরবরাহ ধীরে ধীরে কমিয়ে দিবে। কেননা স্পেন তার নিজের দেশেই আমাদের ভ্যাকসিনটি উৎপাদন শুরু করে দিয়েছে।

মন্ত্রী আরও জানান,এটি এমন একটি সিদ্ধান্ত যা স্পেনীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয়ের করোনার ভ্যাকসিন প্রদান পরিকল্পনার উপর সম্ভবত প্রভাব ফেলবে, ঠিক এই সপ্তাহে এটি বিতরণের জন্য নির্ধারিত ৪,৮৩,০০০ ভ্যাকসিনের ডোজের মধ্যে অর্ধেকই প্রদান  করা হয়ে যাবে। ডিসেম্বরের শেষের দিকে টিকা দেওয়ার প্রচারণা শুরু করার পর থেকেই স্পেন তার নিজের দেশে, বিভিন্ন দেশের বা সংস্থার করোনার ভ্যাকসিন উৎপাদনের আকাঙ্খা করে আসছিল। তবে, মার্কিন রেটিং এজেন্সি স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড পুয়ারস শনিবার হুঁশিয়ারি দিয়েছিল যে, স্পেন যদি তার দেশে করোনার ভ্যাকসিন প্রদানের গতি না বাড়ায় তবে একটি সফল গ্রীষ্মের পর্যটন মৌসুমের মধ্য দিয়ে তার অসুস্থ অর্থনীতি উদ্ধারে সক্ষম হওয়ার সম্ভাবনা ম্লান হয়ে যাবে। ফেব্রুয়ারীর ১৬ তারিখ মঙ্গলবার পর্যন্ত স্পেন তার দেশের জনগণের মাত্র শতকরা ২.২৬ % শতাংশ মানুষকে কোভিড-১৯ এর প্রতিরোধের জন্য ভ্যাকসিনের দুই ডোজ প্রদান শেষ করা হয়েছে।

 কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »