স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির কারনে ভিয়েনায় পুলিশ করোনা বিরোধী বিক্ষোভ বানচাল করে দিয়েছে

ইউরোপ ডেস্কঃ অস্ট্রিয়ার পুলিশ সপ্তাহান্তে সমগ্র অস্ট্রিয়ায় ১৫ টি করোনা বিরোধী বিক্ষোভ থামিয়ে দিয়েছেন। এই সপ্তাহের শেষে অস্ট্রিয়ার করোনা বিরোধীদের পরিকল্পিত ১৭ টি বিক্ষোভের মধ্যে ১৫ টি পুলিশ এই পর্যন্ত আটকে দিয়েছেন। আগামীকাল আরও ২ টি বিক্ষোভের পরিকল্পনা এখনও রয়ে গেছে।

শনিবার ৩০ শে জানুয়ারী।অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় করোনার বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে এক বিক্ষোভের ডাক দিয়েছিল রক্ষণশীল ডানপন্থীরা। তারা ভিয়েনার ৯ টি স্থানে করোনার বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের জন্য পুলিশের নিকট আবেদন করেছিল এবং করোনার পক্ষে আবার ২ টি পাল্টা-বিক্ষোভের জন্য পুলিশের নিকট অনুমতি চাওয়া হয়েছিল। করোনার বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে আজকের বিক্ষোভে প্রায় ১,০০০ হাজার মানুষের উপস্থিতির কথা ছিল।

আগামীকাল রবিবার ভিয়েনায় বিশাল বিক্ষোভের আগে প্রশাসনে টানটানা উত্তেজনা বিরাজ করছে। এই বিক্ষোভে সুপরিচিত নব্য-নাজিদের সহ বিক্ষোভের শেষ পর্বে অস্ট্রিয়ার রক্ষণশীল বিরোধীদল FPÖ এর ক্লাবের চেয়ারম্যান হারবার্ট কিকলের মতো স্টার রাজনীতিবিদদেরও অংশগ্রহণের কথা আছে।

বৃহস্পতিবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কার্ল নেহামার ঘোষণা করেছিলেন যে “জনকল্যাণকে বিপন্ন করে তোলা”, অর্থাৎ স্বাস্থ্যগত ঝুঁকির জন্য সমগ্র অস্ট্রিয়ায় করোনার বিধিনিষেধের বিক্ষোভ নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তবে বিরোধীদল FPÖ নেতৃবৃন্দের উপস্থিতির জন্য রবিবারের বিক্ষোভটির অনুমতি দেওয়া হয়েছে। তবে লোকজন বেশী হলে এবং করোনার বিধিনিষেধ যেমন,মাস্ক ও সামাজিক যোগাযোগের দূরত্ব নিশ্চিত না হলে পুলিশ হস্তক্ষেপ করবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সতর্ক করে দেওয়া হয়েছে। মাস্ক এবং সামাজিক দূরত্ব নিয়ন্ত্রণ লঙ্ঘন করলে পুলিশ ৫০০ ইউরো থেকে ৭২০ ইউরো পর্যন্ত জরিমানা করতে পারে।

 

ভিয়েনার পুলিশ আজকের বিক্ষোভ বানচালের জন্য বিরোধীদল FPÖ নেতৃবৃন্দ বেশ ক্ষেপে উঠেছেন এবং সরকারের ব্যাপক সমালোচনা করেছেন। ধারণা করা হচ্ছে আগামীকাল রবিবারের বিক্ষোভে এফপিও ক্লাবের চেয়ারম্যান হারবার্ট কিকল সরকারের করোনা লকডাউন ও বিধিনিষেধের ব্যাপক সমালোচনা করবেন।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ১,৪৭৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৫ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ করোনায় নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২৪১ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ৩১৭ জন,Steiermark রাজ্যে ২৫৯ জন,OÖ রাজ্যে ২৩৮ জন,Salzburg রাজ্যে ১৬৮ জন, Tirol রাজ্যে ৯৪ জন,Kärnten রাজ্যে ৮৮ জন, Vorarlberg রাজ্যে ৬৩ জন এবং Burgenland রাজ্যে ১০ জন নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪,১৩,২০৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন মোট ৭,৭০৩ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত মোট আরোগ্য লাভ করেছেন ৩,৯১,০৭৬ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৪,৪২৯ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ২৯৬ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১,৬৮২ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »