অস্ট্রিয়ার Tirol রাজ্যে Sailbahn ক্যাবল কারের ১৬ জন কর্মচারীর শরীরে নতুন মিউটেশন ভাইরাস সনাক্ত !

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ আজ অস্ট্রিয়ার Tirol রাজ্যের প্রশাসনের নির্দেশে Schwaz জেলায় দক্ষিণ আফ্রিকার মিউটেশন বা পরিবর্তিত ভাইরাস B.1.351 এর সংক্রমণ সনাক্তের জন্য সমগ্র জেলায় করোনার বাধ্যতামূলক PCR টেস্ট শুরু হয়েছে।

অস্ট্রিয়ার বহুল প্রচারিত ‘দৈনিক কুরিয়ার’ জানিয়েছেন, যে আজ Tirol রাজ্যে ক্যাবল কার (Sailbahn) এর ১৬ জন কর্মচারীর শরীরে দক্ষিণ আফ্রিকার মিউটেশন ভাইরাস সনাক্ত হয়েছে। ফলে ধারণা করা হচ্ছে এই অঞ্চলে বৃটেনের মিউটেশন ভাইরাস ছাড়াও দক্ষিণ আফ্রিকার মিউটেশন ভাইরাসও ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েছে। ইতিপূর্বে Tirol রাজ্যে দক্ষিণ আফ্রিকার মিউটেশন ভাইরাস B.1.351 এ আট জনের শরীরে নিশ্চিত সনাক্ত হয়েছে। যার মধ্যে পাচঁজন Schwaz জেলায়, দুই জন Innsbruck শহরে এবং একজন Innsbruck- Land জেলায়।

প্রশাসনের নির্দেশ মোতাবেক আজ রবিবার থেকে সবচেয়ে বেশী ঝুঁকিপূর্ণ অঞ্চল হিসাবে সন্দেহে সমগ্র Schwaz জেলায় গণ PCR টেস্ট শুরু হয়েছে। এই উদ্দেশ্যে,জেলায় তিনটি স্ক্রেনিং স্ট্রিট ম্যাশিন স্থাপন করা হয়েছে যাতে জনগণ সহজেই পরীক্ষা করতে পারে। এই উপলক্ষে Schwaz জেলার জিলারটাল,মায়রোফেন এবং ফেগেনে ৩ টি করোনা কেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে। এই জেলার মোট জনসংখ্যা প্রায় ৮৮,০০০ হাজার মানুষ। তাছাড়াও এই জেলায় যারা সমগ্র রাজ্য থেকে এসে কাজ করছেন তাদেরও এই PCR টেস্টের আওতায় আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে সতর্কতা হিসাবে এই অঞ্চলের স্কি ফিল্ডগুলি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

আজ অস্ট্রিয়ায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছে ১,২০২ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ২৯ জন। রাজধানী ভিয়েনায় আজ নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২৭৪ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে NÖ রাজ্যে ১৯৭ জন,Steiermark রাজ্যে ১৪৯ জন,OÖ রাজ্যে ১৪৩ জন,Salzburg রাজ্যে ১৩৭ জন,Tirol রাজ্যে ১০৯ জন,Kärnten রাজ্যে ১০২ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৬০ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৩১ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৪,০৪,৭১৪ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৭,৪১৮ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৩,৮১,৬৫৪ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১৫,৬৪২ জন। এর মধ্যে আইসিইউতে আছেন ৩২০ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ১,৮১৭ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

কবির আহমেদ /ইবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »