৪৪ জন বাংলাদেশীকে ফেরৎ পাঠাল মাল্টা সরকার

স্পেন: দীর্ঘ দুই বছর ডিটেনশন সেন্টারে থাকার পর অমানবিকভাবে এবং জেনেভা  কনভেনশন লঙ্ঘন করে ৪৪ বাংলাদেশীকে ফেরৎ পাঠিয়েছে মালটা সরকার। দেয়া হয়নি আপিলের সুযোগও। এ ঘটনায় মাল্টা  বাংলাদেশ কমিউনিটির মধ্যে ব্যাপক  আলোড়ন এবং ক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে ।

গত ১৩ জানুয়ারী রাতের একটি ফ্লাইটে  মালটা মিলিটারি পুলিশ কর্মকর্তারা হ্যান্ডকাফ পড়িয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিয়ে শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে ।  ফেরৎ আসা প্রবাসী বাংলাদেশীরা অভিযোগ করেছেন, ডিটেনশন সেন্টারে থাকাকালীন  সময়ে গ্রীসের বাংলাদেশী দূতাবাস তাদের কোনো সাহায্য- সহযোগিতা করেনি। বরং গ্রীস দূতাবাসের এক কর্মকর্তাদের যোগসাজশে তাদেরকে দেশে পাঠাতে দ্রুত সক্ষম হয়েছে মাল্টা সরকার ।

ফেরৎ আসা বাংলাদেশীরা বেশিরভাগই দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে লিবিয়া হয়ে নৌকা দিয়ে জীবনের চরম ঝুঁকি নিয়ে ইউরোপের দেশ মাল্টায় পাড়ি জমান।মাল্টা ডিটেনশন সেন্টারে আট মাস থেকে দুই বছর পর্যন্ত অবস্থান আটক ছিলেন তারা। ফিরে আসা ৪৪  ছাড়াও আরো দুইশত বাংলাদেশি ডিটেনশন সেন্টারে আটক রয়েছে।

ফিরে আসা মাদারীপুরের মোহাম্মদ ফিরোজ বলেন, আমাদের স্বাক্ষর নকল করে গ্রীস দূতাবাস ভুল তথ্য দিয়ে আউটপাস তৈরি করে।গ্রীসের বাংলাদেশী দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় মাল্টা পুলিশ প্রবাসী বাংলাদেশীদের আউট পাস তৈরি করেতে সক্ষম হয়।

বকুল খান/ইউবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »