থিসিস নকলের অভিযোগ, অস্ট্রিয়ার পরিবার, যুব ও শ্রমমন্ত্রীর পদত্যাগ

অনলাইন ডেস্কঃ  অস্ট্রিয়ার পরিবার,যুব ও শ্রমমন্ত্রী ক্রিস্টিন অ্যাশবাখার (Christine Aschbacher –  ÖVP)-এর বিরুদ্ধে অস্ট্রিয়ার একটি সম্প্রচার কেন্দ্রের এক অনুসন্ধানী সাংবাদিক অভিযোগ করেন যে,মন্ত্রী তার ডক্টর’স ডিগ্রির ডিপ্লোমা থিসিস এবং গবেষণার প্রবন্ধটি তার কন্যার থেকে কিছু অংশ কপি করেছেন।

শনিবার ৯ জানুয়ারী সন্ধ্যায় এই জালিয়াতির অভিযোগের প্ররিপ্রক্ষিতে শ্রমমন্ত্রী ক্রিস্টিন অ্যাসবাখার পদত্যাগ করেছেন। তিনি এক সাংবাদিক সম্মেলন ডেকে তার পদত্যাগ করার সিদ্ধান্ত জাতীয় সংবাদ মাধ্যমকে অবহিত করেছেন। পদত্যাগের ঘোষণা দিয়ে বলেন,আমার বিরুদ্ধে অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য তবে আমি আমার পরিবারের সন্মান রক্ষার্থে পদত্যাগ করেছি। তিনি তার পদত্যাগের কথা সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জের কাছে টেলিফোনে জানিয়েছেন বলে জানান।

অভিযোগে প্রকাশ অস্ট্রিয়ার একটি স্থানীয় সম্প্রচার কেন্দ্রে ৩৭ বৎসর বয়সী এক সাংবাদিক ও বিশেষজ্ঞ Stefan Weber অভিযোগ করেন, মন্ত্রী তার ক্ষমতা ও রাজনৈতিক অবৈধ প্রভাব খাটিয়ে নিজের মেয়ের থিসিসের কিছু অংশ কপি করে ডক্টর’স ডিগ্রির জন্য স্লোভাকিয়ার রাজধানী ব্রাতিসলাভা কারিগরী বিশ্ববিদ্যালয়ে জমা দিয়েছিলেন। অস্ট্রিয়ার দৈনিক পত্রিকা “Der Standard” অভিযোগকারীর উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, শ্রমমন্ত্রী অ্যাশবাখার তার গবেষণার কমপক্ষে পঞ্চম অংশটি অন্য উৎস থেকে যথাযথ লেবেল না করে হুবহু অনুলিপি করে জমা দিয়েছিলেন বলে সংবাদ মাধ্যমকে অভিযোগকারী সাংবাদিক তার প্রমাণ দেখান।

শ্রমমন্ত্রী ক্রিস্টিন অ্যাশবাখার তার নিজের বিরুদ্ধে উপস্থাপিত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন “আমি সর্বদা আমার জ্ঞান এবং বিশ্বাসের জন্য একাডেমিক ডিগ্রি অর্জনের বিষয়ে আমার কাজ আমি নিজেই লিখেছি এবং স্বীকৃত অধ্যাপকদের দ্বারা মূল্যায়নের উপর নির্ভর করেছি।”আমার গবেষণার কাজটি এখন পর্যালোচনা করা হবে এবং এই তদন্তের প্রক্রিয়া এই দেশের সবার জন্য সমান। তিনি অভিযোগ করেন বলেন,আমাকে এবং আমার পরিবারের বিরুদ্ধে মিডিয়ায় এইভাবে প্রকাশ্যে মিথ্যাচারে আমি খুবই মর্মাহত। তিনি দুঃখ করে আরও বলেন, “দুর্ভাগ্যক্রমে আমার বিরুদ্ধে শত্রুতা, রাজনৈতিক ক্ষোভ এবং আক্রমণ কেবল আমার উপরই নয়, আমার সন্তানের উপর এবং অসহনীয় শক্তি দিয়ে ছড়িয়ে পড়ছে। আমি আমার পরিবারকে রক্ষা করার জন্য এটি চালিয়ে যেতে দিতে পারি না। এই কারণে আমি আমার পদ থেকে পদত্যাগ করছি”।

ক্রিস্টিন অ্যাশবাখার (ÖVP) গত বৎসরের ৭ জানুয়ারী অস্ট্রিয়ায় ÖVP ও Grünen পার্টির কোয়ালিশন সরকার গঠিত হলে তিনি অস্ট্রিয়ার পরিবার,যুব ও শ্রম মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব প্রাপ্ত হন। ক্ষমতা গ্রহণের ঠিক এক বৎসর পর তিনি পদত্যাগ করলেন। অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানান,তার উত্তরসূরীর নাম এখনও ঘোষণা করা হয় নি। তবে বিশ্বস্ত সূত্রের উদ্ধৃতি দিয়ে ভিয়েনার কিছু স্থানীয় অনলাইন পোর্টাল জানিয়েছেন যে,সোমবার ১১ জানুয়ারী সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ তার উত্তরসূরীর নাম ঘোষণা করবেন।

শ্রমমন্ত্রীর পদত্যাগের সিদ্ধান্তের পর অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থাকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ বলেন,আমি আমার দলের সহকর্মীর সিদ্ধান্তকে সম্মান করি। সেবাস্তিয়ান কুর্জ বলেন, শ্রমমন্ত্রী ক্রিস্টিন অ্যাসবাখার সাংবাদিক সম্মেলনে তার পদত্যাগের বিস্তারিত ব্যাখ্যা করেছেন। তিনি শ্রমমন্ত্রীকে গত বৎসরের করোনার চ্যালেঞ্জিং এর সময় সরকারকে সর্বাত্মক সহযোগীতার জন্য ধন্যবাদ জানান। তিনি সোমবার শ্রমমন্ত্রীর উত্তরসূরীর নাম ঘোষণা করবেন বলে জানান।

কবির আহমেদ/ইউবি টাইমস

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »