কসোভোতে গ্যাসের ট্যাঙ্ক বিস্ফোরণে ৪৪ জন আহত, গুরুতর আহত ২ জনকে অস্ট্রিয়ায় স্থানান্তর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ কসোভোর রাজধানী প্রিস্টিনা থেকে অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ সহ স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছেন, গত ৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার দক্ষিণ কসোভোর ফিরিজাজ জেলায় একটি রেস্টুরেন্টে একটি তরল গ্যাস ট্যাঙ্কার বিস্ফোরিত হলে ৪৪ জন অগ্নিদগ্ধ হন। এর মধ্যে গুরুতর অগ্নিদগ্ধ ২ জনকে আজ অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনীর C-130 বিমানে বিশেষ ব্যবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য রাজধানী ভিয়েনায় আনা হয়েছে।

সংবাদ সংস্থার খবরে খবরে বলা হয়েছে,গত ৬ জানুয়ারী বৃহস্পতিবার বেলা ২ টার দিকে কসোভোর রাজধানী প্রিস্টিনার ৪০ কিলোমিটার দক্ষিণে ফিরিজাজ জেলা শহরে একটি রেস্টুরেন্টে এই দুর্ঘটনা ঘটে। স্থানীয় পুলিশ জানিয়েছেন,রেস্টুরেন্ট রাখা ১০ লিটারের একটি তরল ট্যাঙ্কার বিস্ফোরিত হয়েছিল। বিস্ফোরণে রেস্টুরেন্টটি সম্পূর্ণ ধ্বংস সহ পাশের দোকানসমূহ এবং রেস্টুরেন্টের সামনে পার্ক করা যানবাহনের ব্যাপক ক্ষতিসাধন হয়। বিস্ফোরণের পর পরই স্থানীয় বাসিন্দারা দমকলকর্মী ও সেখানে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা বাহিনীতে কর্মরত অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনীর সহায়তায় আহত ব্যক্তিদের ভবন থেকে বের করে আনা হয়। প্রথমে আহত সকলকেই স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। পরবর্তীতে গুরুতর অগ্নিদগ্ধ ১২ জনকে রাজধানী প্রিস্টিনার প্রধান হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

প্রিস্টিনা পুলিশের একজন মুখপাত্র কাজীম রেকা সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন, গুরুতর অগ্নিদগ্ধ ২ জনকে বিশেষ ব্যবস্থায় উন্নত চিকিৎসার জন্য অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় পাঠানো হয়েছে। তিনি আরও জানান,করোনা  ভাইরাস মহামারীজনিত কারণে কোসোভোয় যখন পাঁচজনেরও বেশি লোকের জমায়েত নিষিদ্ধ ছিল তখন কেন একটি রেস্তোঁরায় এত লোক ছিল তা স্পষ্ট ছিল না। কসোভো সরকার দুর্ঘটনার তদন্তে বিশেষ একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন।

এদিকে আজ অস্ট্রিয়ায় করোনায় নতুন করে করোনায় সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ২,২৭৮ জন এবং মৃত্যুবরণ করেছেন ৪৬ জন। রাজধানী ভিয়েনাতে আজ নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন ৩৩৯ জন। অন্যান্য রাজ্যের মধ্যে OÖ রাজ্যে ৪৩৫ জন,NÖ রাজ্যে ৩৯১ জন,Steiermark রাজ্যে ২৯৮ জন,Salzburg রাজ্যে ২৮৭ জন,Kärnten রাজ্যে ১৮৫ জন,Tirol রাজ্যে ১৬৯ জন,Vorarlberg রাজ্যে ৯৯ জন এবং Burgenland রাজ্যে ৭৫ জন নতুন করে সংক্রমিত সনাক্ত হয়েছেন।

অস্ট্রিয়ায় এই পর্যন্ত করোনায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩,৭৯,০৭১ জন এবং সর্বমোট মৃত্যুবরণ করেছেন ৬,৬৮৭ জন। করোনার থেকে এই পর্যন্ত আরোগ্য লাভ করেছেন ৩,৫১,৩৮২ জন। বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ২১,০০২ জন। এর মধ্যে ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আইসিইউতে আছেন ৩৬৯ জন এবং হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন ২,৩২৬ জন। বাকীরা নিজ নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »