অস্ট্রিয়ায় করোনার ভ্যাকসিন কর্মসূচির উদ্বোধন করা হোল

ভিয়েনা থেকে,কবির আহমেদঃ ৮৪ বৎসর বয়স্কা থেরেসিয়া হোফার প্রথম অস্ট্রিয়ান হিসাবে রবিবার ২৭ ডিসেম্বর সকালে বায়োএনটেক ও ফাইজারের করোনার প্রথম ভ্যাকসিন গ্রহণ করেন। রবিবার সকাল ৯ টায় অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনার মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (Medical University of Vienna) এই ভ্যাকসিন প্রদান কর্মসূচিতে সরকার প্রধান চ্যান্সেলর (প্রধানমন্ত্রী) সেবাস্তিয়ান কুর্জ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার,অস্ট্রিয়ান মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডা.টমাস সেকেরেস এবং অস্ট্রিয়ান ভ্যাকসিনেশন কমিশনের চেয়ারম্যান ডা.উরসুলা উইডারম্যান-শ্মিট উপস্থিত ছিলেন।

ডা.উরসুলা প্রথমে ৮৪ বৎসর বয়স্কা বৃদ্ধা হোফারের শরীরে ইনজেকশনের মাধ্যমে করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করেন। তিনি তারপর আরও ৪ জন বয়স্ক ও ঝুঁকিপূর্ণ গ্রুপের মানুষকে এই ভ্যাকসিন প্রদান করেন। তিনি উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন,ভ্যাকসিন গ্রহণকারী সকলেই সুস্থ আছেন এবং তাদের কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় নি।পরবর্তী ভ্যাকসিন ডোজ কার্যক্রম মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে পূর্বে নিবন্ধিত লোকজনকে দেয়া অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন অস্ট্রিয়ান সংবাদ মাধ্যম।

প্রথম ভ্যাকসিন গ্রহণের অনুভূতি জানাতে গিয়ে ৮৪ বৎসর বয়স্কা বৃদ্ধা টেরেসিয়া হোফার আবেগ আপ্লুত হয়ে বলেন,এই ভ্যাকসিন গ্রহণের পর আমি খুবই আনন্দিত কেননা এখন আমি আমার পরিবারের সাথে মিশতে পারবো। তিনি জানান,ঝুঁকিপূর্ণ গ্রুপের সদস্যা বলে তাকে নার্সিংহোমে পরিবারের সদস্যদের সাথে গ্লাস রুমের বাহির থেকেই  সন্তান, নাতি- নাতনিদের সাথে ইশারায় কথা বলতে হয়েছে। তিনি বলেন,এখন আমাকে আমার পরিবারের সদস্যদের সাথে দেখা করার অনুমতি দেয়া হয়েছে,যা আমার জন্য সত্যিই এক অভূতপূর্ব আনন্দের দিন।

অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএ জানিয়েছেন,অস্ট্রিয়ান সেনাবাহিনী কর্তৃক করোনার ভ্যাকসিন অন্যান্য সমস্ত রাজ্যে সরবরাহ করা হয়েছে এবং একই সময়ে বিভিন্ন রাজ্যেও করোনার ভ্যাকসিন ডোজ দেয়া শুরু হয়েছে। গতকাল সকালে অস্ট্রিয়ায় করোনার ভ্যাকসিনের প্রথম চালান ৯,৭৫০ ডোজ এসে পৌঁছে । সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছে আগামী সপ্তাহে আরও ২ লাখ করোনার ভ্যাকসিন অস্ট্রিয়ায় আসার কথা রয়েছে । স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্ধৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, প্রাথমিকভাবে ৪,০০০ হাজার বয়স্ক এবং ঝুঁকিপূর্ণ গ্রুপের মানুষের নাম লিপিবদ্ধ করা হয়েছে এবং এই লিপিবদ্ধ স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ অব্যাহত রাখবেন।

প্রথম ভ্যাকসিন দেয়া এই অনুষ্ঠানে পাশের রুমে উপস্থিত ছিলেন সরকার প্রধান চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার। উভয়েই প্রথম ভ্যাকসিন গ্রহণকারী ৫ জনের সাথে কথাবার্তা বলেন। ৫ জনের ভ্যাকসিন প্রধান সম্পন্ন হলে চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কুর্জ ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুডল্ফ আনস্কোবার অপেক্ষমান সাংবাদিকদের বলেন, এই ভ্যাকসিন প্রয়োগে আমরা খুবই আনন্দিত ।

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »