আগামীকাল ২৬ ডিসেম্বর থেকে অস্ট্রিয়ায় তৃতীয় লকডাউন শুরু

তৃতীয়বারের মতো লকডাউনের ফলে অস্ট্রিয়ায় ব্যবসা-বাণিজ্যে বিলিয়ন বিলিয়ন ইউরোর ক্ষতির সম্মুখীন !

ইউরোপ ডেস্ক থেকে,কবির আহমেদঃ  আগামীকাল ২৬ ডিসেম্বর থেকে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত অস্ট্রিয়ায় পুনরায় তৃতীয়বারের মতো সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। তবে অবস্থার উন্নতির উপর নির্ভর করে ১৮  জানুয়ারী থেকে ব্যবসা-বাণিজ্য সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। বর্তমান তৃতীয় লকডাউনের ফলে দেশীয় খুচরা শিল্পে বিলিয়ন ইউরোর বিক্রি থেকে বিরত থাকবে এবং সরকারও এই সময়ে বিক্রয়কর থেকে বঞ্চিত হবে।

জোহানেস কেপলার ইউনিভার্সিটি লিন্জের (JKU) ট্রেড গবেষকরা কেবল ১.৯ বিলিয়ন ইউরোর নিখুঁত বিক্রয় ক্ষতির আশা করেছেন। তার উপর সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ১৫,১৬ ও ১৭ জানুয়ারীর ফ্রি করোনার টেস্টের পর ১৮ থেকে ২৪ তারিখ পর্যন্ত শপিংমল বা বিভিন্ন ব্যবসা-বাণিজ্যে করোনার নেগেটিভ সনদ ব্যবসায়ী ও জনগণের জন্য বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ফলে ১৮ তারিখ সবকিছু খুললেও দোকানপাটে গ্রাহক কম হওয়ার সমূহ সম্ভাবনা আছে।

JKU এর পরিসংখ্যানে বলা হয়েছে অস্ট্রিয়ায় প্রথম লকডাউনে বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ৩.৮ বিলিয়ন ইউরোর খুচরা বিক্রয় ক্ষতি হয় এবং দ্বিতীয় লকডাউনের ফলে ক্ষতি হয়েছিল ২.২ বিলিয়ন ইউরোর। অনুমান করা হচ্ছে তৃতীয় লকডাউনের ফলে দেশীয় খুচরা বিক্রেতারা প্রায় ৮ বিলিয়ন ইউরোর বিক্রয় হারাবেন। অবশ্য অস্ট্রিয়ান ট্রেড ইউনিয়ন অ্যাসোসিয়েশন ১০ বিলিয়ন ইউরোর বেশীর ক্ষতি আশঙ্কা করছে।

ট্রেড অ্যাসোসিয়েশনের ম্যানেজার রেইনার উইল অস্ট্রিয়ান সংবাদ সংস্থা এপিএকে বলেছেন, “তিনটি কঠোর লকডাউনের ফলে অস্ট্রিয়ার ছোট ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠানকে মারাত্মক আঘাত করেছে। নতুন বৎসরে উইল সরকারকে ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য “আরও পরিকল্পনার সুরক্ষা” রাখতে চান। ব্যবসায়ীরা সরকারের জানুয়ারিতে পুনরায় করোনার গণ পরীক্ষা এবং ১৮ জানুয়ারীর পর থেকে গ্রাহকদের করোনার নেগেটিভ সনদ প্রদর্শনের নিয়মের সমালোচনা করছেন।

১৮ জানুয়ারী থেকে সমস্ত দোকান এবং পরিষেবা সরবরাহকারী পাশাপাশি রেস্তোঁরা এবং হোটেলগুলিতে করোনার নেগেটিভ সনদ দেখার আদেশ দেওয়া হয়েছে। ফলে ব্যবসায়ী ও গ্রাহকদের মধ্যে এক বিব্রতকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। কেহ যদি করোনার পরীক্ষা না করে তাহলে কেনাকাটার জন্য তাকে ২৫ শে জানুয়ারী পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে।

এদিকে ২৬ ডিসেম্বর থেকে ২৪ জানুয়ারী পর্যন্ত অস্ট্রিয়ায় সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণার ফলে অস্ট্রিয়ান মুসলিম কমিউনিটি(IGGÖ) আগামী সোমবার ২৮ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারী পর্যন্ত অস্ট্রিয়ার সকল মসজিদে দৈনিক ৫ ওয়াক্তের জামায়াতে নামাজ, জুম্মার নামাজ সহ সকল প্রকার সম্মিলিত কার্যক্রম স্থগিত ঘোষণা করেছেন। তবে ব্যক্তিগত ইবাদত বা নামাজের জন্য মসজিদ খোলা থাকবে। মসজিদের পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা এবং অফিসের কার্যক্রম স্বাভাবিক করা যাবে। তবে অবশ্যই মসজিদে প্রবেশ করলে মাস্ক বাধ্যতামূলক পড়তে হবে এবং সামাজিক দূরত্ব ১,৫ মিটার বজায় রাখতে হবে। কেহ অসুস্থ বোধ করলে মসজিদে না আসার জন্য বলা হয়েছে। অস্ট্রিয়ার সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান আগামী ১৮ জানুয়ারী ২০২১ সোমবার খুলবে। তবে আগামী ৭ জানুয়ারী থেকে পুনরায় Distance Learning অর্থাৎ অনলাইন ক্লাশ শুরু হবে।

EuroBanglaTimes

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »